লুক্সেমবার্গ ভিসা

1312

লুক্সেমবার্গ ভিসা

 

ইউরোপের সবচেয়ে উন্নত দেশগুলোর অন্যতম লুক্সেমবার্গকে বলা হয় ‘tax heaven’ বা ‘করের স্বর্গ’।  বিশ্বের অন্যান্য দেশের ধনকুবের ব্যবসায়ীরা নিজ দেশের উচ্চ কর হার এড়াতে বসবাসের জন্য বেছে নেন লুক্সেমবার্গকে।  পশ্চিম ইউরোপের ক্ষুদ্রায়তন এই দেশটির বর্তমান মাথাপিছু আয় প্রায় ৬৭ লাখ টাকা।লুক্সেমবার্গ ভিসা 

লুক্সেমবার্গ ইউরোপ মহাদেশের একটি ক্ষুদ্রায়তন রাষ্ট্র। রাজধানীর নামও লুক্সেমবার্গ।  এ দেশটি বেনেলুক্স এবং ইউরোপীয ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত।  এটি শেনঝেন চুক্তি স্বাক্ষরকারী একটি দেশ; ফলে শেনঝেন ভিসা নিয়ে এদেশে প্রবেশ করা যায়।   এর জনসংখ্যা সাড়ে চার লাখেরও কম।

লুক্সেমবার্গ ইউরো অঞ্চলভুক্ত একটি দেশ; তাই এখানকার প্রচলিত মুদ্রা হলো ইউরো।  এটি পৃথিবীর অন্যতম ধনী একটি দেশ।  লুক্সেমবার্গের আয়তন ২,৫৮৬ বর্গকিলোমিটার।  ১৮১৫ সালের ৯ জুন থেকে স্বাধীন দেশটি ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত হয়।  এর জনসংখ্যা প্রায় ৫,৩৭,৫৮৩।

২০১২ সালের হিসাবে লুক্সেমবার্গের গ্রোস ডোমেসটিক প্রোডাক্ট (জিডিপি) হলো ৫৭ দশমিক ১২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।  প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে ফরাসি ভাষায় পাঠদান করা হয়।  হাইস্কুলে পৌঁছার আগে শিখে নেয় জার্মান ভাষা। আর হাইস্কুলে পড়ালে যার প্রধান ভাষা ইংরেজি।  তাদের নিজস্ব ভাষা ‘লিতজিবুয়িরগেস’।  তবে স্থানীয় পত্রিকাগুলো সব ভাষায় তাদের প্রতিবেদন করে থাকে।

লুক্সেমবার্গের প্রধান আয়ের উৎস হলো ব্যাংকিং খাত।  এই ছোট্ট রাষ্ট্রটিতে ২৫০টির বেশি ব্যাংক আছে।  এখানকার ব্যাংকিং ব্যবস্থা ইউরোপীয় দেশগুলোসহ বিশ্বের মধ্যে সেরা।  এ দেশের জনগণকে খুব বেশি স্মার্ট হিসেবে গণ্য করা হয়। লুক্সেমবার্গ ট্যাক্স-হেভেন বা করের-স্বর্গ নামে সুখ্যাত।

সূত্র : ফোর্বস ও উইকিপিডিয়া

ইউরোপের মুসলমানদের নিয়ে নতুন তথ্য

 

ইউরোপের মুসলমানদের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আচরণ বাড়ছে এবং প্রতি পাঁচজনের মধ্যে দুইজন অর্থাৎ ৪০ শতাংশ মুসলমান বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।  চাকরি, বাড়ি ভাড়া নেয়াসহ শিক্ষার মতো সরকারি সেবা নেয়ার ক্ষেত্রেও ইউরোপের মুসলমানরা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।

একটি মতামত জরিপে এ তথ্য উঠেছে এসেছে।  জরিপে অংশগ্রহণকারী ৩০ শতাংশ জানিয়েছেন গত ১২ মাসে তারা অপমানসূচক আচরণ বা গালাগালির মুখে পড়েছেন। আর ২ শতাংশ তাদের গায়ে হাত তোলা হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন।

 ভিসা আবেদন প্রোসেস সংক্রান্ত:

যোগাযোগ করুন আমাদের ভিসা সহায়ক ব্যবাস্হাপক এর সাথে

মোবাইল:(+88) 01978569293)

ওয়েবসাইট:  www.airwaysoffice.com
ই-মেইল: myvisaapplicationinfo@gmail.com

ইউরোপীয় মৌলিক অধিকার সংস্থার পরিচালিত মতামত জরিপে ইউরোপের সমাজব্যবস্থার ইসলামবিদ্বেষী প্রকট এ রূপটি উঠে এসেছে।  ২০১৫ সালের শেষ থেকে ২০১৬ সালের গোড়ার দিক পর্যন্ত এটি চালানো হয়।  ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, সুইডেন এবং ব্রিটেনসহ ১৫ ইউরোপীয় দেশের সাড়ে ১০ হাজার মুসলমানের ওপর এ জরিপ চালানো হয়।

আমাদের ভিসা প্রসেসিং ফি  ১৮০০টকা (অর্থ প্রদানের জন্য এখানে ক্লিক করুন)

তো ঘোরে আসুন প্রকৃতির অপার্থিব সৌন্দর্য এই দেশে

 

লুক্সেমবার্গ ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  • পাসপোর্ট (পাসপোর্টের মেয়াদ ৬ মাসের বেশি থাকতে হবে)
  • সাম্প্রতিক তোলা দুই কপি ছবি। সাদা পটভূমিতে ছবি তুলতে হবে, চোখে কালো চশমা বা মাথায় টুপি জাতীয় কিছু রাখা যাবে না আর ছবিতে অবশ্যই পুরো মুখমণ্ডল আসতে হবে।
  • ভ্রমণ শেষ হওয়ার পরও অন্তত ছয় মাস মেয়াদ আছে এমন পাসপোর্ট জমা দিতে হবে।
  • পাসপোর্টের ডাটা পেজগুলোর ফটোকপি যুক্ত করতে হবে।
  • অন্তত ৩০ হাজার ইউরো মূল্যমানের স্বাস্থ্য বীমা প্রয়োজন হবে।
  • জমা দেয়া প্রতিটি কাগজের মূলকপির সাথে একটি করে ফটোকপিও দিতে হবে।
  • আবেদনপত্রের ভাষা অথবা ফর্মের ঘরগুলো ইংরেজিতে পূরণ করতে হবে। সুইডিশ, ডেনিশ, অথবা নরওয়েজিয়ান ভাষাতেও পূরণ করা যাবে।
  • শিশুদের ক্ষেত্রে বাবা মা বা বৈধ অভিভাবকের অনুমতিপত্র জমা দিতে হবে। এছাড়া শিশুদের ভিসা আবেদনের ক্ষেত্রে বাবা-মা বা অভিভাবকে অবশ্যই দূতাবাসে উপস্থিত থাকতে হবে।
  • প্রতিটি ভিসার জন্য প্রায় ৬০ ইউরো সমপরিমাণ টাকা এডমিনিস্ট্রেশন ফি হিসেবে জমা দিতে হয়। ভিসা সাক্ষাতকারের পরপরই এই ফি দিতে হয়।

 

অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য:

  • লুক্সেমবার্গ ভ্রমণের নির্ধারিত তারিখের চার থেকে ছয় সপ্তাহ আগে ভিসা আবেদনপত্র জমা দেয়া উচিত।
  • সাধারণত ১২-১৫ কর্মদিবসের মধ্যেই পোল্যান্ড ভিসা ইস্যু হয়ে যায়। তবে কখন কখন ১ মাস পর্যন্ত লাগতে পারে।
  • ভিসা ইস্যু হওয়ার পর পাসপোর্ট সংগ্রহের সময়ই ভিসা কিভাবে দেয়া হয়েছে সেটা দেখে নেয়া উচিত। কোন সমস্যা থাকলে সাথে সাথেই ভিসা কাউন্টারে জানাতে হবে।
  • শুধু ভিসা আবেদনের সময়ই নয়, লুক্সেমবার্গ প্রবেশের সময়ও আর্থিক সামর্থ্যের প্রমাণ দেখাতে হয়। কারণ সেনজেন ভিসাই লুক্সেমবার্গ  প্রবেশের একমাত্র নিশ্চয়তা নয়। তাই আর্থিক সামর্থ্যের প্রমাণ ভ্রমণের সময় সাথে রাখতে হবে।

যেকোনো দেশের এয়ার টিকেট, হোটেল বুকিং, হেলিকপ্টার সার্ভিস, টুরিস্ট ভিসা প্রসেসিং এবং প্যাকেজ ট্যুর করে থাকি। বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন নিচের ঠিকানায়।

zooFamily (community of aviation & travel)

রোড ৩, হোল্ডিং ৩, সুইট ৩৪,হ্যাপি আর্কেড শপিং মল,ধানমণ্ডি,ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ। মোবাইল নাম্বার: ০১৭৬৮২৩২৩১১