আর এন সাহা হাউজ| ট্র্যাভেল নিউজ বাংলাদেশ

565

আর এন সাহা হাউজ বাংলাদেশের একটি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা। এটি ইছামতি নদীর পাশে অবস্থিত। নবকুমার সাহা মুর্শিদাবাদ থেকে এসে ১৮২৫ সালের মাঝামাঝি হতে ১৮৫০ সাল পর্যন্ত এই ভবনটি নির্মাণ করেন। রাধা নাথ সাহার নামে এই ভবনটির নামকরণ করা হয়।

নবাবগঞ্জে অবস্থিত আর এন সাহা হাউসের বর্তমান মালিক একজন স্থানীয় ব্যবসায়ী। ইছামতি নদীর ঠিক পাশেই অবস্থিত আর এন সাহা হাউস বর্তমানে মেরামতধীন। ধনী ব্যবসায়ী রাধা নাথ সাহার নামে এই ভবনটির নামকরণ করা হয়। ধারনা করা যায় যে, খুব শিগগিরই এই স্থানটিকে একটি আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

চারিদিকে কক্ষ ঘেরা এই বাড়ির অংশে ছিল অতিথিশালা, অন্দর মহল, মন্দির, রয়েছে সুন্দর দোতলা বাড়ি মাঝে ছোট একটি খোলা জায়গা। চমৎকার স্থাপত্যশৈলী সমৃদ্ধ এই স্থানটি ভ্রমণের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন স্পট হিসেবে আখ্যায়িত।

বর্তমানে প্রাসাদসম এই ভবনটির মালিক শ্রী দুলাল চন্দ্র সাহার কাছ থেকে জানা যায় যে ১৮২৫ সালের মাঝামাঝি হতে ১৮৫০ সাল পর্যন্ত এই ভবনটি নির্মাণ করেন ব্যবসায়ী নগেন্দ্র কুমার সাহার পিতা নবকুমার সাহা। নবকুমার সাহার পরিবার ছিল বণিক পরিবার ব্যবসা ছিল যাদের মূল পেশা। এই পরিবারটি কোলকাতা, মদনগঞ্জ, বরিশাল, শেরপুর এবং মুর্শিদাবাদে আরো বেশকিছু ব্যবসাকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করে।

আর এন সাহা হাউসে বসবাসকারী ব্যবসায়ীরা অবিভক্ত ভারতের বিভিন্ন জমিদার পরিবারের (যেমনঃ বালিয়াটি, নগরপুর, চৌদ্দরাশি এবং জনাব আর পি সাহা) সাথে পারিবারিক সম্পর্ক বজায় রেখেছিল।

কিভাবে যাবেন:-

গুলিস্তান বাসস্ট্যান্ড থেকে বাসে করে নবাবগঞ্জ বাজারে পৌছালে আপনার আর এন সাহা হাউস খুঁজে পেতে সমস্যা হবে না। নবাবগঞ্জ বাজারে পৌঁছে আপনাকে কলাকোপাগামী রিকশা অথবা অটোরিকশায় চড়তে হবে।

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here