ঘুরে আসুন শ্রীলঙ্কা

583

ঘুরে আসুন শ্রীলঙ্কা

 

ভ্রমণ বা ব্যবসার জন্য উপমহাদেশের দ্বীপ রাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা যেতে বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ভিসা বাধ্যতামূলক নয়। শ্রীলঙ্কা গিয়েই ৩০ দিনের অন এরাইভাল ভিসা নেয়া যায়। তবে ঢাকাস্থ শ্রীলঙ্কা দূতাবাসে গিয়ে আগে থেকেই ভিসা সংগ্রহ করে নেয়া শ্রেয়, কারণ শ্রীলঙ্কা গিয়ে ভিসা পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা যায় না।ঘুরে আসুন শ্রীলঙ্কা

ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

  • যথাযথভাবে পূরণ কৃত ভিসা আবেদন ফরম,
  • অন্তত ছয় মাস মেয়াদ আছে এমন বৈধ পাসপোর্ট,
  • পাসপোর্টের প্রথম পাঁচ পৃষ্ঠার ফটোকপি,
  • ফিরতি বিমান টিকেট এবং তার ফটোকপি,
  • শ্রীলঙ্কা থেকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্র বা অফার লেটার
  • সসাম্প্রতিক তোলা দুই কপি রঙিন ছবি।

ভিসা ফি: ২,১০০ টাকা

আমাদের ভিসা প্রসেসিং ফি  ১৮০০টকা (অর্থ প্রদানের জন্য এখানে ক্লিক করুন)

এন্ডোর্সমেন্ট:

৩০ দিনের ভ্রমণের জন্য ১০০০ ডলারের এন্ডোর্সমেন্ট এবং দুই সপ্তাহের ভ্রমণের জন্য ৫০০ ডলারের এন্ডোর্সমেন্ট বা এন্ডোর্সমেন্টের রসিদ জমা দিতে হবে। ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করলে পর্যাপ্ত ব্যাল্যান্স থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক থেকে দেয়া সনদ জমা দিতে হবে।  তবে ভিসা আবেদনকারীর স্পন্সর থাকলে এন্ডোর্সমেন্ট প্রয়োজন হবে না।

বিজনেস ভিসা :

বিজনেস ভিসার ক্ষেত্রে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রদেয় সব কাগজপত্রই প্রয়োজন হবে এবং সাথে আরও কিছু কাগজপত্র দিতে হবে:
সংশ্লিষ্ট স্থানীয় প্রতিষ্ঠান বা চাকুরিদাতার তরফ থেকে লেখা একটি চিঠি জমা দিতে হবে। এই চিঠিতে ভ্রমণের উদ্দেশ্য, ভ্রমণের তারিখসহ বিস্তারিত উল্লেখ থাকতে হবে। শ্রীলঙ্কার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান থেকে পাঠানো আমন্ত্রণ পত্র।

বিনামূল্যের অফিসিয়াল ভিসা (Gratis Visa) :

আন্তর্জাতিক সংস্থা বা  সরকারি কর্মকর্তারা বিনামূল্যের ভিসায় শ্রীলঙ্কা ভ্রমণ করতে পারেন। এসব ক্ষেত্রে ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্রের সাথে অতিরিক্ত আরও কিছু কাগজপত্র দিতে হবে:
কূটনীতিক বা অফিসিয়াল পাসপোর্ট, সরকারি অনুমতিপত্র, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বা সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক সংস্থার পক্ষ থেকে লেখা অনুরোধ পত্র (Note Verbale)।

 ভিসা আবেদন প্রোসেস সংক্রান্ত:

যোগাযোগ করুন আমাদের ভিসা সহায়ক ব্যবাস্হাপক এর সাথে

মোবাইল:(+88) 01978569293)

ওয়েবসাইট:  www.airwaysoffice.com
ই-মেইল: myvisaapplicationinfo@gmail.com

রেসিডেন্স ভিসা :

শ্রীলঙ্কার যে প্রতিষ্ঠানে কাজ করার জন্য রেসিডেন্স ভিসার জন্য আবেদন করা হচ্ছে সে প্রতিষ্ঠানের তরফ থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ভিসা ইস্যু করার অনুরোধ জানিয়ে শ্রীলঙ্কার ইমিগ্রেশন বিভাগে চিঠি পাঠাতে হবে। এখানে ভিসা আবেদনকারীর নাম, জাতীয়তা, শ্রীলঙ্কায় অবস্থানের মেয়াদ, কাজের ধরন ইত্যাদি উল্লেখ করেতে হবে। এছাড়া মন্ত্রণালয় বা সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সুপারিশও প্রয়োজন হবে।

শ্রীলঙ্কায় প্রবেশের পর এক মাসের অনএরাইভাল ভিসা দেয়া হয় এবং পর্যালোচনার পর সেটাকে রেসিডেন্স ভিসায় রূপান্তরিত করা হয়। অন্য কোন ধরনের ভিসাকে রেসিডেন্স ভিসায় রূপান্তরিত করা যায় না।

ভিসা আবেদনপত্র:

শ্রীলঙ্কা দূতাবাসের ওয়েবসাইট থেকে ভিসা আবেদন ফরমটি ডাউনলোড করে নেয়া যায়। আবার শ্রীলঙ্কা দূতাবাসে গিয়েও ভিসা আবেদন ফরম সংগ্রহ করা যাবে। ডাউনলোড লিংক: http://www.slhcdhaka.org/dl_visa.php

ভিসা ইস্যু :

আবেদনপত্র জমা দেয়ার পরদিন বিকাল ৩:৩০ টা থেকে ৪:৩০টা মধ্যে ভিসা ইস্যু করা হয়।

 

যেকোনো দেশের এয়ার টিকেট, হোটেল বুকিং, হেলিকপ্টার সার্ভিস, টুরিস্ট ভিসা প্রসেসিং এবং প্যাকেজ ট্যুর করে থাকি। বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন নিচের ঠিকানায়।

zooFamily (community of aviation & travel)

রোড ৩, হোল্ডিং ৩, সুইট ৩৪,হ্যাপি আর্কদিয়া শপিং মল,ধানমণ্ডি,ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ। মোবাইল নাম্বার: ০১৭৬৮২৩২৩১১

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here