নিরিবিলি পিকনিক স্পট| ট্র্যাভেল নিউজ বাংলাদেশ

506

সাধারন মানুষের ভ্রমণ পরিকল্পনায় সাধারণত প্রাকৃতিক ভাবে গড়ে উঠা স্থান গুলোই প্রথন দিকে থাকে। মানুষ চায় তার অবসর সময়টুকু প্রকৃতির রুপ উপভোগ করেই কাটুক। কিন্তু আধুনিক কালে নগর সভ্যতার মানুষ গুলোর জন্য এই সুযোগ খুবই কম। তাই এই আধুনিক সমাজে রিসোর্ট কিংবা অবকাশ যাপনকেন্দ্র গুলোর প্রতি আকর্ষণ দিন দিন বেড়েই চলেছে। নড়াইলের নিরিবিলি পিকনিক স্পট অন্যতম একটি অবকাশ যাপনকেন্দ্র।

সবুজ গাছপালায় ঘেরা হাজারো পাখির কলকাকলি, আকর্ষণীয় ফুলের বাগান, মিনি চিড়িয়াখানা, দৃষ্টিনন্দন পুকুর, বাহারি ফুয়ারা, আর গ্রাম বাংলার বিলুপ্ত প্রায় লোকজ ঐতিহ্যের সমারোহে গড়ে উঠা নড়াইলের নিরিবিলি পিকনিক স্পট। আম, কাঁঠাল, নারিকেল, সুপারী, লেবু, মেহগুনি, রবার, পান্থমাধব, ক্রিস্টমাস ট্রি আর ঝাউ গাছে সমৃদ্ধ ওইপেন গাছের বেড়ায় ঘেরা ফুলের বাগানগুলোতে গোলাপ ডালিয়া, চন্দ্রমল্লিকা, কসমস, লিলি, গ্লোবল, রজনীগন্ধা, সুর্য্যমুখি ফুলের সমারোহে মনোরম এক পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।

এখানে রয়েছে বিভিন্ন বয়সের দর্শনার্থীদের উপযোগী ১২টি রাইড যার মধ্যে রোপওয়ে, ট্রেন, ওয়াটার বোর্ড প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। এ ছাড়া রয়েছে বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামসহ বিভিন্ন স্মরণীয় ব্যক্তিত্বের ভাস্কর্য। আর পিকনিক স্পট লাগোয়া মিনি চিড়িয়াখানায় রয়েছে হরিণ, কুমির, ভাল্লুক, অজগরসহ নানা জাতের পশুপাখি এবং বিরল প্রজাতির পেলিকন পাখি। এ ছাড়া এখানকার আর একটি চমত্কার সংগ্রহ হচ্ছে শরণখোলা থেকে সংগ্রহ করা ৭০ ফুট লম্বা একটি তিমি মাছের কঙ্কাল। এখানে যাওয়ার জন্য দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে নড়াইল সদরে এসে সেখান থেকে লক্ষীপাশা বাসস্ট্যান্ডের দিকে যেতে থাকলে হাতের বাঁ দিকে পড়বে নিরিবিলি পিকনিক স্পট। তাছাড়া ঢাকা থেকে মাওয়া ফেরিঘাট এবং কালনা ফেরীঘাট পার হয়ে লোহাগড়া গিয়ে সোজা ১ এক কি.মি. সামনে গেলেও পৌঁছানো যাবে নিরিবিলিতে। আর এই পিকনিক স্পটটি খোলা থাকে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। এখানে থাকার আবাসিক ব্যবস্থাও রয়েছে।

মিনি চিড়িয়াখানায় স্থান পেয়েছে কুমির, হরিণ, ভল্লুক, পেলিকন পাখি, অজগরসহ নানা রং ও রূরে প্রাণির ভাস্কর্য। নিরিবিলি পিকনিট স্পটটি প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকে।

যেভাবে যাবেনঃ-

ঢাকা থেকে সরাসরি বাস কিংবা ট্রেইনে চেপে সরাসরি নড়াইল জেলা শহরে পৌঁছানো যায়। ঢাকার গাবতলি,সায়দাবাদ,মহাখালি বাস টার্মিনাল গুলো থেকে বাস পাওয়া যায়। নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানার লক্ষীপাশার অদুরে রামপুর নামক স্থানে স্পটটি অবস্থিত।