ফুলবাড়িয়া বাস স্ট্যান্ড | ট্র্যাভেল নিউজ বাংলাদেশ

0
24

ফুলবাড়িয়া বাস স্ট্যান্ড ঢাকা শহরের ব্যস্ততম একটি বাস স্ট্যান্ড। এখান থেকে ঢাকা-মাওয়া এবং ঢাকা-দোহার রুটে প্রায় ১০০০ বাস চলাচল করে থাকে।

 

ঠিকানা এবং অবস্থান

গুলিস্তান জিপিও থেকে গোলাপ শাহ মাজার পেরিয়ে সুন্দরবন স্কোয়ার মার্কেটের পাশে এটি অবস্থিত।

 

বাস, রুট এবং টিকেটের মূল্য

বাসের নাম স্থান টিকেটের মূল্য
ডিএনকে পরিবহন ঢাকা থেকে টিকিরপুর

ঢাকা থেকে দোহার

৪০ টাকা।

৬০ টাকা।

দ্রুত পরিবহন ঢাকা থেকে মুন্সীগঞ্জ ৮০ টাকা।
যমুনা পরিবহন ঢাকা থেকে দোহার ৮০ টাকা।
ইলিশ ঢাকা থেকে বাহ্রাঘাট ৭০ টাকা।
মেট্রো সার্ভিস ঢাকা থেকে মুন্সীগঞ্জ ৮০ টাকা।
আরাম ঢাকা থেকে দোহার ৮০ টাকা।
বোরাক ঢাকা থেকে সোনারগাঁও ৫০ টাকা।
পাঞ্জেরী ঢাকা থেকে সোনারগাঁও ৫০ টাকা।

 

বাসগুলোর ধরন

এখানে বাসগুলো দুই ধরনের; (১) সিটিং (২) লোকাল। সিটিং বাসগুলো স্ট্যান্ড থেকে যাত্রী ভর্তি করে গেটলক অবস্থায় যাত্রা বিরতী না দিয়ে গন্তব্য স্থানে যাত্রা করে। লোকাল বাসগুলো পথে যাত্রা বিরতি দিয়ে যাতায়াত করে থাকে। বাসগুলো সাধারনত ৩২ সিট বিশিষ্ট। সিটিং বাসগুলো সারিবদ্ধ অবস্থায় থাকে। কিন্থু লোকাল বাসগুলো অবিন্যস্তভাবে যাত্রী ওঠানামা করে থাকে। বাসগুলোতে সবসময় একজন ড্রাইভার এবং হেলপার অবস্থান করে থাকে।সিটিং বাসের ভাড়া অপেক্ষাকৃত বেশী। লোকাল বাসের ভাড়া কম। গন্তব্যে পৌঁছাতে বাসগুলোর সময় লাগে ২ থেকে ২.৩০ ঘন্টা। তবে সিটিং সার্ভিসে অপেক্ষাকৃত কম সময় লাগে।

 

শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা

বাসগুলো এসিযুক্ত নয়। তবে কোন কোন বাসে ফ্যান রয়েছে। সিটিং বাসগুলোতে এই পদ্ধতি দেখা যায়।

 

টিকেট ক্রয় এবং ফেরত

বাসস্ট্যান্ডে পৌছে টিকেট ক্রয় করতে হয়। অগ্রিম টিকেট কাটার ব্যবস্থা নেই। টিকেট ফেরত দিতে চাইলে তাত্ক্ষণিকভাবে তা কাউন্টারে জমা দিতে হয়।

 

ওয়েটিং রুম

এখানে ওয়েটিং রুমের কোন ব্যবস্থা নেই। তবে টিকেট কেটে যাত্রীরা বাস বসে থাকতে পারে। অথবা পাশে দালান বা মার্কেটের ফুটপাতে অপেক্ষা করতে পারে।

 

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

পর্যাপ্ত কমিউনিটি পুলিশ রয়েছে। স্ট্যান্ডের নিরাপত্তা এবং যাত্রীরা যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে তারা সবসময় খেয়াল রাখে।

 

নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা

বাসস্ট্যান্ডের পাশেই রয়েছে মসজিদ। এখানে যাত্রীরা নামাজ আদায় করতে পারেন।

 

খাওয়া দাওয়া

এখানে হাতের কাছেই রয়েছে ফাস্টফুড শপ, রেষ্টুরেন্ট এবং চাইনীজ রেষ্টুরেন্ট। যা্ত্রীগন এখানে খাওয়া দাওয়া করে নিতে পারেন।

 

গাড়ি পার্কিং

এখানে গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা নেই।

 

সাবধানতা

  • বাস স্ট্যান্ডে অপরিচিত লোকের নিকট থেকে কিছু খাওয়া বা নেওয়া নিষেধ।
  • টাকা পয়সা, মালপত্র এবং শিশু বাচ্চা দেখে শুনে রাখতে হয়।
  • ছিনতাইকারী, পকেটমার এবং চোর থেকে সাবধান থাকতে হয়।
  • কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সেদিকে খেয়াল রাখতে হয়।
  • অযথা কলহ, দ্বন্দ্ব এবং সংঘাত থেকে এড়িয়ে চলতে হয়।
  • দূর্ঘটনা থেকে নিজেকে এবং সাথে পরিবারবর্গকে সুরক্ষা করতে হয়।

 

Leave a Reply