BRTC আন্তর্জাতিক বাস সার্ভিস

0
314

BRTC আন্তর্জাতিক বাস সার্ভিস

আজকাল আধুনিক উন্নত যাত্রীদের আরামদায়ক সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যে আন্তর্জাতিক বাস সার্ভিস চালু হয়েছে। এর মধ্যে BRTC আন্তর্জাতিক বাস সার্ভিস অন্যতম। ১৯৯৯ সালে BRTC আন্তর্জাতিক বাস হিসেবে যাত্রা শুরু করে।

 

প্রধান কাউন্টারের ঠিকানা  যোগাযোগ

BRTC বাস ডিপো,কমলাপুর,ঢাকা। কমলাপুর বুকিং নাম্বরঃ +৮৮-৮৩৫০২৪১।

কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে সোজা পশ্চিমে ৫০ গজ।

যোগাযোগ ব্যবস্থা

প্রধান টিকেট প্রাপ্তিস্থানঃ

আন্তর্জাতিক বাস ডিপো,কমলাপুর,ঢাকা

ফোন- +৮৮-০২-৯৩৫৩৮৮২, মোবাইল: +৮৮- ০১৭৪৯-৯৩৭৫৪৫

ফোন-+৮৮- ৮৩৬০২৪১

মোবাইল:+৮৮- ০১৭১৬-৯৪২১৫৪

 

বুকিং এবং টিকেট ক্রয়ঃ

এই বাস কোম্পানীতে অনলাইনে টিকেট কাটার ব্যবস্থা নেই। সরাসরি কাউন্টারে টিকেট কাটার জন্য যেতে হবে।

  • বুকিং দেওয়ার জন্য যোগাযোগ নাম্বারঃ +৮৮-০১৭৪৯-৯৩৭৫৪৫, ফোন-+৮৮-০২- ৯৩৫৩৮৮২
  • টিকেট কেনার জন্য অবশ্যই পাসপোর্ট নিয়ে যেতে হবে। আসল পাসপোর্ট নিলে ফটোকপির দরকার হয় না। টিকেট কেনার জন্য আসল ভিসা বা ফটোকপির দরকার হয় না।

এসি এবং নন এসি বাসগুলোর তথ্য সমূহ:

এই বাস কোম্পানীতে অগ্রীম রিজার্ভেশনের নিয়ম হল:

 

  • এক মাসে আগেও রিজার্ভেশন দেওয়া হয়। তবে কমপক্ষে ৩ দিন আগে রিজার্ভ দিতে হয়।
  • টিকেট ফেরতের শর্তাবলী হল কমপক্ষে ৩৬ ঘন্টা আগে জানাতে হবে বা সরাসরি কাউন্টারে আগে বলতে হবে। তবে ১০% কাটা যাবে।
  • সাধারণত এই কোম্পানীতে বাসের টিকেট নিতে হয় সিরিয়াল অনুযায়ী লাইন ধরে।
  • এই বাস কাউন্টারের টিকেটিং সিস্টেম হল ম্যানুয়াল।
  • এই বাস সার্ভিসে রিটার্ন টিকেট কাটা যায়। তবে কোলকাতা থেকে কনফার্ম করতে হয়।

 

বাসের ধরণ

  • এই বাস কোম্পানীর বাসগুলো ৪০ সিট বিশিষ্ট। সব সিটের টিকেট মূল্য একই।
  • এই কোম্পানীতে যে যে ব্রান্ডের বাস ব্যবহার করা হয়- BRTC শ্যামলী পরিবহন World Class RM-2 এবং সোর্হাদ্য বিলাসবহুল VOLO মার্ক-৩ সব বাসই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত।

 

বাসের সার্ভিস বা সেবার ধরন:

  • যাত্রীদের সুবিধার জন্য সকালে নাস্তা খাবার পানীয় ব্যবস্থা করে বাস কর্তৃপক্ষ। শীতের সময় যাত্রীদের কম্বল দেওয়া হয়।
  • বিনোদনের ব্যবস্থা হিসাবে এলসিডি মনিটর টিভি সিডি থাকে।
  • ওয়েটিং রুমে যাত্রীদের বসার ব্যবস্থাসহ বিনোদনের জন্য টিভি রয়েছে। মোটামুটি ১০০ জনের ব্যবস্থা রয়েছে। এবং টয়লেট মহিলা ও পুরুষদের জন্য আলাদা মোট ৮ টি টয়লেট রয়েছে।
  • যাত্রীদের মধ্যে যাদের বমি হয় তাদের জন্য পলিথিনের ব্যবস্থা করা হয়।
  • বাসের ভেতরে গোলমাল ও ধূমপান নিষিদ্ধ।
  • যাত্রীকে বর্ডার ব্যাংক (সোনালী ব্যাংক) Travel Tax দিতে হয়। ইমিগ্রেশন এর জন্য পাসপোর্ট ইমিগ্রেশন সিল করতে হয়।
  • এই বাসগুলোতে কুলি,ভ্যান,রিক্সা দরকার হয় না। বাস স্টাফ সবকিছু বহন করে।

 

ভাড়ার তালিকা:

গন্তব্য ভাড়া
কোলকাতা ১৭০০/-
আগরতলা ৩০০/-

 

ছেড়ে যাওয়ার সময়সূচী

ঢাকা থেকে ছাড়ে BRTC সোম,বুধ,শুক্র সকাল ৭.৩০ মিঃ

সোর্হাদ্য- শনি,মঙ্গল,বৃহঃ সকাল ৭.৩০ মিনিট

কোলকাতা থেকে ছাড়ে- BRTC শনি,মঙ্গল,বৃহঃ সকাল ৭.৩০ মিঃ

কোলকাতা থেকে সোর্হাদ্য- সোম,বুধ,শুক্র সকাল ৭.০০ মিঃ

 

যে যে গন্তব্যে বাস সার্ভিস চালু আছে

ঢাকা থেকে কোলকাতার করুনামেয় (সল্টটেক)

ঢাকা থেকে ভারতে নামানো হয়- করুনাময়,সল্টটেক,কোলকাতার নিউ মার্কেটে।

 

প্রক্রিয়া

  • এই বাসগুলোর চেক আপ হয় সীমান্ত কাস্টমস চেক আপ সীমান্ত অফিসে। আর অন্য কোন জায়গায় চেক আপ হয় না।
  • যাত্রীদের খাবার জন্য ২০ মিনিট মাগুরায় থামানো হয়।
  • সীমান্তে কোন বাস বদল করা হয় না। কারণ এই বাসগুলো সরাসরি কোলকাতায় যায়।
  • সাধারণত এই বাসগুলোর বাংলাদেশ বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে সার্ভিস চালু আছে।
  • শহরের ভিতর এবং অন্য কোন জায়গা হতে যাত্রীদের নিজেদেরই কাউন্টারে আসতে হয়।
  • যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য বাসে দুইজন গানম্যান এবং আনসারের ব্যবস্থা রয়েছে।
  • এই কোম্পানীর সকল বাসগুলো বীমাকৃত।

 

মালপত্র পরিবহন:

  • একজন যাত্রী সর্বোচ্চ ২২ কেজি মালপত্র নিতে পারে। এর বেশী হলে ১০০ টাকা করে চার্জ দিতে হয়।
  • যাত্রাকালে মাল যাত্রীর দায়িত্বে থাকলে তা যদি হারিয়ে যায় তবে বাস কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবেনা। আর যদি  বাস কর্তৃপক্ষের দায়িত্বে থাকা মাল হারিয়ে যায় তবে বাস কর্তৃপক্ষ ক্ষতিপূরণ দিবে।
  • লাগেজ পরীক্ষা করা হয়।

 

সুবিধাঃ

  • সাধারণত এই বাসগুলোতে কোন শিশু ও মহিলা এবং প্রতিবন্ধী মুক্তিযোদ্ধার জন্য কোন সিট বরাদ্দ থাকে না।
  • গাড়ির অভ্যন্তরে যাত্রীদের সুবিধার জন্য এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করা হয়।

 

মুদ্রা বিনিময়ঃ

  • কোলকাতার বাস কোম্পানীর তরফ থেকে মুদ্রা বিনিময়ের জন্য করুনাময় কাউন্টারে মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থা রয়েছে।
  • বাস ছাড়ার আগে যদি যাত্রী না আসে এবং দেরী করে আসে সেক্ষেত্রে বাস কর্তৃপক্ষ বাস ছেড়ে দিলে কোন টাকা ফেরত দেয় না। কারণ বাস নির্ধারিত সময়ে ছাড়ে।
  • অত্যাধুনিক সুবিধা সম্পন্ন এই বিলাস বহুল গাড়িতে রয়েছে। ডিজিটাল সাউন্ড সিস্টেম,অরিজিনাল ২ টা LCD মনিটর। বিশ্বের উন্নত প্রযুক্তি সংযুক্ত এয়ার সাসপেনশন সিস্টেম,যা গাড়িকে সার্বক্ষনিক ঝাঁকুনিমুক্ত রাখতে সহায়তা করে।
  • এছাড়া নিয়মিত ঢাকা-শিলিগুঁড়ি-ঢাকা-আগরতলা রুটে স্বনামধন্য শ্যামলী পরিবহন তার সার্ভিস পরিচালনা করে আসছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here