ব্রক্ষ্মপুত্র এক্সপ্রেস| ট্র্যাভেল নিউজ বাংলাদেশ

535

ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জ পর্যন্ত নিয়মিত চলাচল করে ব্রক্ষ্মপুত্র এক্সপ্রেস। এটি আন্ত:নগর ট্রেন সার্ভিস।

 

যোগাযোগ

  • কমলাপুর রেলওয়ে ষ্টেশন, মতিঝিল, ঢাকা

ফোন নম্বর: ৯৩৫৮৬৩৪,৮৩১৫৮৫৭, ৯৩৩১৮২২

মোবাইল নম্বর: ০১৭১১৬৯১৬১২

  • বিমানবন্দর রেলওয়ে ষ্টেশন

ফোন নম্বর: ৮৯২৪২৩৯

 

ছাড়ার সময়

ঢাকা থেকে ছাড়ে দেওয়ানগঞ্জ পৌঁছে বন্ধের দিন
সন্ধ্যা ৬:০০ রাত ১২:১০ নেই
দেওয়ানগঞ্জ থেকে ছাড়ে ঢাকা পৌঁছে বন্ধের দিন
সকাল ০৬:৩০ দুপুর ১২:১৫ নেই
  • এই ট্রেনের কোন সাপ্তাহিক বন্ধ নেই। প্রতিদিন চলাচল করে।

 

বিরতির স্থান

  • বিমানবন্দর
  • জয়দেবপুর
  • টাঙ্গাইল
  • বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব ও পশ্চিম পাশে
  • উল্লাহ পাড়া
  • চাটমোহর
  • আব্দুল্লাহপুর

 

ট্রেনের বগি 

  • এই ট্রেনে বগি রয়েছে ১৪টি।
  • ১টি খাবার বগি
  • ১টি পাওয়ার কার বগি।
  • খাবারের বগিতে নামাযের জন্য আলাদা জায়গা বরাদ্দ রয়েছে।
  • খাবারের বগিটি ট্রেনের মাঝামাঝি স্থানে অবস্থিত।

 

রাজশাহী পর্যন্ত টিকেটের মূল্য

  • বার্থ এসি ৬৮০ টাকা (প্রতি আসন)
  • বার্থ প্রথম শ্রেণী ৪২৫ টাকা (প্রতি আসন)
  • স্নিগ্ধা ২য় শ্রেণী ৩৩৪ টাকা (প্রতি আসন)
  • শোভন চেয়ার ২য় শ্রেণী ১৬৫ টাকা (প্রতি আসন)
  • শোভন ২য় শ্রেণী ১৪০ টাকা (প্রতি আসন)
  • তিন থেকে বার বছরের বাচ্চাদের জন্য অপ্রাপ্ত বয়স্ক টিকিট ক্রয় করা বাধ্যতামূলক।

 

কিভাবে টিকেট ক্রয়

  • টিকেট ক্রয় করার জন্য ঢাকার কমলাপুর, বিমানবন্দর ষ্টেশনের কাউন্টারে যোগাযোগ করতে হয়।
  • এছাড়া মোবাইলে এসএমএস – এর মাধ্যমেও টিকেট ক্রয় করা যাবে। মোবাইল এর মাধ্যমে যেভাবে টিকেট ক্রয় করা যায় – প্রথমে মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন TKET এবং পাঠিয়ে দিন 1200 নম্বরে। এরপর ফিরতি ম্যাসেজে আপনি চার সংখ্যার একটি পিন নম্বর পাবেন ধরুন পিন নম্বর হিসেবে আপনি 1234 নম্বরটি পেলেন, এখন পিন নাম্বারটি পরিবর্তন করতে হবে এইভাবে *777*1234* আপনার পছন্দের পিন নাম্বার# (*777*1234*4321#) এবং Send বাটন চাপুন। পিন নাম্বারটি পরিবর্তন হয়ে গেলে টিকিট ক্রয় করার জন্য *131*1# ডায়াল করুন এবং পরবর্তী নির্দেশনা অনুসরণ করুন। বুকিং সম্পন্ন হয়ে গেলে আপনি একটি বুকিং কোর্ড পাবেন, কোডটি সংরক্ষণ করুন, টিকিট নিশ্চিত করার জন্য ডায়াল করুন *131*1#  আরও বিস্তারিত জানার জন্য 1200 নাম্বারে ডায়াল করুন। যাত্রার তারিখের ১০ দিন পূর্ব থেকে অগ্রীম টিকিট বুকিং দেওয়া যায়।

 

টিকিট ফেরত

  • ট্রেন ছাড়ার ৪৮ ঘন্টা পূর্বে ফেরত দিলে সংশ্লিষ্ট শ্রেণীর ক্লারিকেল চার্জ কেটে পূর্ণ মূল্য ফেরত দেওয়া হয়।
  • ৪৮ ঘন্টার কম ২৪ ঘন্টার বেশী ২০% কেটে রাখা হয়।
  • ২৪ ঘন্টার কম ১২ ঘন্টার বেশী ৩০% কেটে রাখা হয়।
  • ১২ ঘন্টার কম ৬ ঘন্টার বেশী ৪০% কেটে রাখা হয়।
  • ৬ ঘন্টার কম ৩ ঘন্টার বেশী ৫০% কেটে রাখা হয়।
  • ৩ ঘন্টার কম সময়ের ক্ষেত্রে কোন মূল্য ফেরৎ দেওয়া হয় না।

 

খাবার মূল্য

নাম মূল্য
চিকেন বার্গার (১পিস) ৩৫/-
বীফ বার্গার (১পিস) ৩০/-
মাটন বার্গার (১পিস) ২০/-
প্লেন কেক (১পিস) ১২/-
চিকেন স্যান্ডউইচ (১পিস) ১৫/-
চিকেন পেটিস (১পিস) ১৫/-
ভেজিটেবল পেটিস (১পিস) ২০/-
চিকেন রোল (১পিস) ২০/-
মাটন রোল (১পিস) ২০/-
ভেজিটেবল রোল (১পিস) ১২/-
পাউরুটি (জেম, জেমি বাটার ছাড়া) ৪/-
পাউরুটি (জেম, জেলিসহ) ৫/-
চা (প্রতি কাপ) ৬/-
কফি (প্রতি কাপ) ১২/-
ওভালটিন (প্রতি কাপ) ১০/-
চিকেন কাটলেট (১২৫ গ্রাম) প্রতিটি ২০/-
মাটন কাটলেট (১২৫ গ্রাম) প্রতিটি ২০/-
সিদ্ধ ডিম ১০/-
ফ্রাইড চিকেন দেশী (১২৫ গ্রাম ১/৪ অংশ) ৩০/-
ফ্রাইড চিকেন ফার্ম ১/৮ গ্রাম ২৫/-
ফ্রেঞ্চ ঝাল টোস্ট (১ পিস) ১০/-
চিকেন ভুনা (১২৫ গ্রাম) ৩৫/-
সামী কাবাব ১০/-
সিঙ্গারা (১০০ গ্রাম) ৫/-
সমুচা (১০০ গ্রাম) ৬/-
সফট ড্রিংকস/মিনারেল ওয়াটার বাজারদর
চিপস, চকলেট, দৈনিক পত্রিকা, ম্যাগাজিন বাজারদর

 

কুলি চার্জ

লাগেজের পরিমাণ চার্জ (টাকা)
অনধিক ২৮ কেজি (১টি ব্যাগ) ১৫/-
অনধিক ২৮ কেজি (২টি ব্যাগ) ২০/-
অনধিক ৩৭ কেজি (১টি ব্যাগ) ২০/-
অনধিক ৩৭ কেজি (২টি ব্যাগ) ২৫/-
অনধিক ৫৬ কেজি (১টি ব্যাগ) ৩০/-
অনধিক ৫৬ কেজি (২টি ব্যাগ) ৬৫/-
ট্রলি যাত্রী দ্বারা ব্যবহৃত ১৫/-
ট্রলি কুলি দ্বারা ব্যবহৃত ২০/-
হুইল চেয়ার যাত্রী দ্বারা ব্যবহৃত ১০/-
হুইল চেয়ার কুলি দ্বারা ব্যবহৃত ২০/-

 

বিবিধ

  • এসি সার্ভিসের যাত্রীগণ টিকেট মূল্যের সাথে সর্বোচ্চ ৫৬ কেজি, প্রথম শ্রেণী ৩৭.৫ কেজি, শোভন ২৮ কেজি ও সুলভ/দ্বিতীয় শ্রেণী ২৩ কেজি পর্যন্ত বৈধ মালামাল বহন করতে পারে।
  • প্রত্যেকটি বগিতে রয়েছে একজন করে কর্তব্যরত গাইড। যাত্রীদের সেবা, প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও ট্রেনের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তারা দায়িত্ব পালন করে থাকে।
  • যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য রয়েছে জানালার পাশে এ্যালুমিনিয়ামের শাটার। ট্রেনে ভ্রমণকালে কিছু সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়। যেমন – ট্রেনের দরজা-জানালাতে না বসা, ট্রেনের ছাদে না ওঠা, ইঞ্জিনে ওঠে না বসা। ঘনবসতি বা বস্তি এলাকাতে ট্রেন চলার সময় জানালার শাটার লাগিয়ে দেয়া।
  • এসি কেবিন ছাড়া শোভন বগিতে স্ট্যান্ডিং টিকিট কাটার সুবিধা রয়েছে। স্ট্যান্ডিং টিকিট তখন দেয়া হয় যখন মোট বরাদ্দকৃত টিকিট বিক্রি শেষ হয়ে যায়। স্ট্যান্ডিং টিকিটের মূল্য সিটিং টিকিটের সমান এবং সাথে বিনা মাশুলে নির্দিষ্ট পরিমাণে মালামাল সাথে নেওয়া যায়।

    তথ্য সুত্রঃ- অনলাইন ঢাকা গাইড