এ,কে ট্রাভেলস বাস | ট্র্যাভেল নিউজ বাংলাদেশ

564

কল্যাণপুর থেকে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া গাড়িগুলোর মধ্যে এ,কে ট্রাভেলস একটি। এটি একটি সুপার স্যালুন চেয়ার কোচ ননএসি সার্ভিস। এই পরিবহনের গাড়িগুলো ৪০ সিটের ।

বাংলাদেশের বাস সার্ভিসের মধ্যে এ,কে ট্রাভেলস অন্যতম। এ,কে ট্রাভেলস বাসের ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় টিকিট কাউন্টার রয়েছে। তাই এ,কে ট্রাভেলস বাসের টিকিট প্রাপ্তি যাত্রীদের জন্য সুবিধার। তাছাড়া যাত্রী পরিবহনেও এই এ,কে ট্রাভেলস বাসের সুনাম রয়েছে। এ,কে ট্রাভেলস বাস সম্পর্কে অন্য সকল তথ্য পেতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

ট্র্যাভেল জু বাংলাদেশ লিমিটেড  বা জু ইনফোটেক বাংলাদেশ লিমিটেড
রোড ৩, হোল্ডিং ৩, সুইট ৩৪,
হ্যাপি আর্কদিয়া শপিং মল,
ধানমণ্ডি,ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
মোবাইল নাম্বার: ০১৯৭৮৫৬৯২৯০– ৯১
সকাল ১০.৩০ থেকে রাত ৮.৩০ পর্যন্ত (সপ্তাহে ৭ দিন খোলা)

প্রধান অফিসের ঠিকানা ও যোগাযোগ  

কাশেম গ্রুপ, কাশেম প্লাজা, আবুল কাশেম রোড, সাতক্ষীরা

ফোন: +৮৮-০২-৪৭১৬৩৫৩৭

মোবাইল :+৮৮-০১৭১৬২৬৭১২০

ঢাকাস্থ বুকিং কাউন্টারগুলো:

মতিঝিল: +৮৮-৭১৯৫৭৯৯, ০১১৯১৬২০৬৪২

ফকিরাপুল: +৮৮-০১১৯১-৬২০৬৪৩

কলাবাগান: +৮৮-৮১৪২২৭১, ০১১৯১৬২০৬৪১

শ্যামলী: ১৫/২, মমতাজ ম্যানসন, ফোন: +৮৮-৯১০১০৮৩, ০১১৯০৭৫৬৬৭২

কল্যাণপুর: +৮৮-০১১৯১২২৯৪২১

গাবতলী: মিরপুর আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল, ফোন: ০২-৮০৩২৯১৬, ০১১৯১৬২০৬২১, ০১১৯১৬২০৬২২,০১১৯০৭৫৬৬৬২

নবীনগর: +৮৮-০১১৯১৬২০৬৬৪

মানিকগঞ্জ: +৮৮-০১১৯১-৩১২৮৫২

গন্তব্য ও ভাড়া

গন্তব্য ভাড়া
খুলনা ৫৫০ টাকা (চেয়ার কোচ); ১০০০ টাকা (এসি)
সাতক্ষীরা ৫৫০ টাকা (চেয়ার কোচ); ১০০০ টাকা (এসি)
যশোর ৪০০ টাকা (চেয়ার কোচ)
নড়াইল ৫৫০ টাকা (চেয়ার কোচ)
বেনাপোল ৬০০ টাকা (চেয়ার কোচ)

 

সময়সূচী

খুলনার বাসগুলো ১ ঘন্টা পরপর ছেড়ে যায় এবং সাতক্ষীরা ও যশোরের বাসগুলো ১.৩০ ঘন্টা পরপর ছেড়ে যায়। নড়াইল – বেনাপোলের বাসগুলো দিনে সকাল ৮.৪৫ এবং রাত ১০.৪৫ এবং রাত ১১.০০ টার দিকে ছেড়ে যায়।

 

টিকেট বাতিল ও পরিবর্তন

কোন যাত্রী নির্ধারিত তারিখে তার যাত্রা বাতিল করতে চাইলে গাড়ী ছাড়ার ১২ ঘন্টা পূর্বে টিকেট কাউন্টারে জানাতে হয়। টেলিফোনে বাতিল বা পরিবর্তন করা যায় না। ঈদের ১০ দিন আগে ও পরে টিকেট ফেরত,আসন কিংবা তারিখ পরিবর্তন করা যায় না।

 

মালামাল পরিবহন

  • প্রত্যেক যাত্রী সর্বোচ্চ ১০ কেজি মালামাল বহন করতে পারে। এই ওজনের অধিক মালামাল হলে অতিরিক্ত ভাড়া দিতে হয়। অতিরিক্ত ভাড়া আলোচনা সাপেক্ষে নির্ধারিত হয়।

 

টিকেট ক্রয় ও বুকিং

  • ঈদে ছাড়া যাত্রী চাইলে সরাসরি এসে অগ্রিম টিকেট কাটতে পারেন এবং ফোনেও সিট বুকিং দিতে পারেন।
  • ঈদের সময় ব্যতিত বছরের যেকোন সময় টেলিফোনের মাধ্যমে আসন বুকিং দেওয়া যায়।
  • ঈদের সময় অগ্রিম টিকেট কাটতে হয়। এ সময় টেলিফোনে আসন বুকিংয়ের কোন ব্যবস্থা থাকে না।
  • এখানে একাধিক টিকেট ক্রয়ে কোন ছাড়ের ব্যবস্থা নেই।

 

বিবিধ

  • বাস ছাড়ার ১৫ মিনিট পূর্বে নির্দিষ্ট স্থানে উপস্থিত হতে হয়।
  • গাড়ি ভাড়া দেয়া হয়। ভাড়া নেয়ার জন্য যেকোন কাউন্টারে যোগাযোগ করলেই হয়-
  • যাত্রীদের বমির জন্য পলিথিনের ব্যবস্থা রয়েছে।
  • গাড়িতে মিনারেল ওয়াটার বা অন্য কোন খাবার যাত্রীদের দেয়ার ব্যবস্থা নেই।
  • এই পরিবহনের গাড়ির ছাদে মালামাল বহন করা হয় না।
  • এই পরিবহনের গাড়ির আসনগুলো স্লিপিং চেয়ার।
  • যাত্রীদের ল্যাগেজ বক্সে রাখার ব্যবস্থা রয়েছে।
  • এই পরিবহনের গাড়ীর ছাদে পন্য পরিবহন করার ব্যবস্থা নেই।
  • ঢাকা থেকে যাওয়ার সময় আরিচা ফেরিঘাটে ও আসার সময় দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে যাত্রা বিরতি দেওয়া হয়।তথ্য সুত্রঃ- অনলাইন ঢাকা গাইড