বগা-লেক

893

বান্দরবানে যে কয়েকটি দর্শনীয় স্থান আছে বগা-লেক তার মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষণীয়দের মাঝে একটা। বগাকাইন হ্রদ বা বগা হ্রদ বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উচ্চতার স্বাদু পানির একটি হ্রদ। বান্দরবান শহর থেকে প্রায় ৭০ কিলোমিটার দূরে বগাকাইন হ্রদের অবস্থান কেওকারাডং পর্বতের গা ঘেষে, রুমা উপজেলায়। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা প্রায় ১,২৪৬ ফুট (৩৮০ মিটার) (কিওক্রাডাং-এর উচ্চতা ৩,১৭২ ফুট)। ফানেল বা চোঙা আকৃতির আরেকটি ছোট পাহাড়ের চুড়ায় বগা লেকের অদ্ভুত গঠন অনেকটা আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখের মতো। প্রকৃতি তার নিজ খেয়ালে পাহাড়ের উপর জলরাশি সঞ্চার করে তৈরি করেছে এই হ্রদ।

বাংলাদেশের ভূতাত্ত্বিকগণের মতে বগাকাইন হ্রদ মৃত আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ কিংবা মহাশূন্য থেকে উল্কাপিণ্ডের পতনের ফলে সৃষ্টি হয়েছে। অনেকে আবার ভূমিধ্বসের কারণেও এটি সৃষ্টি হতে পারে বলে মত প্রকাশ করেছেন। এটি ভুবন স্তরসমষ্টির (Bhuban Foundation) নরম শিলা দ্বারা গঠিত। বাংলাপিডিয়ায় এর পানি বেশ অম্লধর্মী এবং একারণে এতে কোনো শ্যাওলা বা অন্যান্য জলজ উদ্ভিদ নেই, এবং কোনো জলজ প্রাণীও এখানে বাঁচতে পারেনা বলা হলেও ২০০৯-এর তথ্যসূত্রে জানা যায় বগা লেকের পানি অত্যন্ত সুপেয়, এবং লেকের জলে প্রচুর শ্যাওলা, শালুক, শাপলা ও অন্যান্য জলজ উদ্ভিদ এবং প্রচুর মাছ এমনকি বিশালাকার মাছ রয়েছে।

পাহাড় চূড়ায় ১৫ একর জায়গা জুড়ে ছড়িয়ে আছে এই অত্যাশ্চর্য হ্রদটি। পাহাড়ের চূড়ায় নীল জলের আস্তর নীল আকাশের সাথে মিশে তৈরি করেছে এক প্রাকৃতিক বিস্ময়। মুগ্ধ দৃষ্টিতে তাকিয়ে দেখতে হয় আকাশ পাহাড় আর জলের মেলবন্ধন। প্রকৃতি এখানে ঢেলে দিয়েছে একরাশ সবুজের ছোঁয়াও। যেন তুলির আঁচড়ে বগা-লেকের পুরো জায়গা সেজেছে ক্যানভাসের রঙে আর প্রকৃতি তার আপন খেয়ালে এঁকেছে জলছবি।

নীলপানির এই লেকটির সৃষ্টির পেছনে বেশকিছু কল্পকাহিনী রয়েছে। বেশীরভাগ পর্যটক শীতকালে বগা লেকে বেড়াতে আসেন। বর্ষাকালে এই লেকের পাশে হাঁটা কঠিন হয়ে পড়ে। বগা লেকের ভিতরে ও বাইরে ছড়িয়ে থাকা বিশালাকারের পাথর অবাক করবে আপনাকে। লেকের পাশে ক্যাম্প ফায়ারের আয়োজন করে এক অবিশ্বাস্য এবং মনজুড়ানো অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবেন। রুমা থেকে বগা লেকে যাওয়ার রাস্তাটি বর্তমানে নির্মাণাধীন রয়েছে। বগা লেকের পাশে আদিবাসী বাউম ও খুমি সম্প্রদায়ের দেখা মিলবে।

যেভাবে যাবেনঃ-

প্রথমেই আপনাকে ঢাকা থেকে বান্দরবানে পৌছাতে হবে। বান্দরবান থেকে রুমায় চান্দের গাড়ি অথবা ব্যাক্তিগত গাড়িতে করে যেতে পারবেন। রুমা থেকে জিপে করে বগা লেকে যেতে পারবেন। এছাড়া শীতকালে পায়ে হেঁটে বগা লেকে পৌছাতে পারবেন। পায়ে হেঁটে বগা লেকে পৌছাতে প্রায় ৬ ঘণ্টা সময় লাগবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here