ইউ এস বাংলা বিমান টিকেট, গন্তব্য, ভাড়া, আসন সহ সব তথ্য – ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সে ভ্রমণ

0
19

 ইউ এস বাংলা বিমান টিকেট, গন্তব্য, ভাড়া, আসন সহ সব তথ্য – ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সে ভ্রমণ

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের বহুল প্রচলিত এবং জনপ্রিয় বেসরকারী বিমান সংস্থা। এটি যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ইউ এস বাংলা গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠান। ২০১৪ সালের জুলাই মাসে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স তাদের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করে। ন্যায্য ভাড়া এবং সময় নিয়ন্ত্রিত বিমান পরিচালনা করার ফলে প্রতিষ্ঠার কয়েক বছরের মধ্যেই ইউ এস বাংলা দেশের অন্যতম বৃহৎ ও জনপ্রিয় একটি বিমান সংস্থায় পরিনত হয়। সম্প্রতি ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের চতুর্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত হয়। এ জন্যে আমরা তাদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন।

শুরুর দিকে ইউ এস বাংলা দেশের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটগুলোর দিকে মনোযোগী হয়। সেবার মান ভাল হওয়ায় তারা গ্রাহকদের মাঝে চাহিদা সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়। যার ফলে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটের জন্যে তারা কানাডা নির্মিত বোম্বারডিয়ার ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ বিমান ব্যাবহার করে। আন্তরিক চেষ্টা এবং গ্রাহকদের কাছে জনপ্রিয়তা অটুট থাকার কারণে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশের ৮ টি অভ্যন্তরীণ রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনায় সক্ষম হয় ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স। দীর্ঘদিন তারা বেশ সুনামের সাথে এই রুটগুলোতে ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছে।

শুরু থেকেই ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স চেয়েছিল সেবা দিয়ে যাত্রীদের মন জয় করতে। সেই সেবা তারা দিয়ে গেছে এবং ফলস্বরূপ জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। আভ্যান্তরিন রুটে জনপ্রিয়তা পাবার পর তারা আন্তর্জাতিক রুটের দিকে মনোনিবেশ করে। এ উপলক্ষে একাধিক বোয়িং ৭৩৭-৮০০ বিমান নিজেদের বহরে সংযুক্ত করে। ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে সফলতার সাথে ৭ টি আন্তর্জাতিক রুটে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

শুধু ফ্লাইট বৃদ্ধি নয়, বরঞ্চ ফ্লাইটগুলোর মান উন্নয়নের জন্য ইউ এস বাংলা সদা সচেষ্ট থেকেছে। জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাবার পরেও তাদের সেবায় কোন ভাটা পরেনি। যার ফলস্বরূপ ২০১৪ এবং ২০১৫ সালে বাংলাদেশ ট্রাভেলারস অ্যাসোসিয়েশন ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স কে বছরের সেরা এয়ারলাইন্স ঘোষণা করে। শুধু তাই না, ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের একমাত্র ISO 9001-2008 সনদপ্রাপ্ত এয়ারলাইন্স।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স
উড্ডয়নরত ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর বোয়িং ৭৩৭-৮০০

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর রুট সমুহ

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে ৮ টি অভ্যন্তরীণ ও ৭ টি আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। বেসরকারি বিমান সংস্থা হিসেবে এটি বাংলাদেশের সর্বচ্চ।

তাদের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটগুলো নিম্নলিখিট রুট গুলোতে চলাচল করেঃ

  • ঢাকা – চট্টগ্রাম
  • ঢাকা – কক্সবাজার
  • ঢাকা – যশোর
  • ঢাকা – সিলেট
  • ঢাকা – রাজশাহী
  • ঢাকা – সৈয়দপুর
  • ঢাকা – বরিশাল

এখানে উল্লেখ্য যে ঢাকা বরিশাল রুটে বাংলাদেশ বিমানে ও নভোএয়ারের পাশাপাশি একমাত্র ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সই ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর অন্তর্জাতিক ফ্লাইটগুলো নিম্নলিখিট রুট গুলোতে চলাচল করেঃ

  • ঢাকা – কলকাতা
  • ঢাকা – কুয়ালালামপুর
  • ঢাকা – সিঙ্গাপুর
  • ঢাকা – ব্যাংকক
  • ঢাকা – দোহা (কাতার)
  • ঢাকা – গুওাংজু (চীন)
  • ঢাকা – কাঠমান্ডু (আপাতত স্থগিত আছে)
  • ঢাকা – মাস্কট (ওমান)

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স ভবিষ্যতে তাদের আন্তর্জাতিক গন্তব্যের সংখ্যা বাড়াতে আগ্রহি। এ জন্যে বিমান কেনা সহ অন্যান্য ব্যাপারগুলো প্রক্রিয়াধিন আছে। অদুর ভবিষ্যতে তারা দুবাই, দাম্মাম, রিয়াদ, জেদ্দা, চেন্নাই, কলম্বো, মালদ্বীপ, সিউল, টোকিও, বালি, বাহরাইন, রোম এবং লন্ডনের মত গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্যও গুলোতে ফ্লাইট শুরু করার কথা ভাবছে।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর দৈনিক ও সাপ্তাহিক ফ্লাইট

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুট মিলিয়ে সপ্তাহে ৩০০ টিরও বেশী ফ্লাইট পরিচালনা করছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে চার বছর অতিক্রম করা বিমান সংস্থাটি ইতিমধ্যে ৪৫ হাজারেরও বেশী ফ্লাইট পরিচালনা শেষ করেছে। ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের রুট গুলোর দৈনিক এবং সাপ্তাহিক ফ্লাইট সংখ্যার একটি হিসাব এখানে দেয়া হল।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের অভ্যন্তরীণ রুট এবং ফ্লাইট সংখ্যা

রুট দৈনিক ফ্লাইট সংখ্যা সাপ্তাহিক ফ্লাইট সংখ্যা
ঢাকা – চট্টগ্রাম ৮ টি ফ্লাইট ৫৬ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – কক্সবাজার ২ টি ফ্লাইট ১৪ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – সিলেট বুধ, বৃহস্পতি ও শুক্রবার – ২ টি করে ফ্লাইট

অন্য সবদিন – ১ টি করে ফ্লাইট

১০ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – যশোর ৪ ট ফ্লাইট ২৮ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – রাজশাহী ১ টি ফ্লাইট ৭ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – সৈয়দপুর ৪ টি ফ্লাইট ২৮ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – বরিশাল ১ টি ফ্লাইট ৪ টি ফ্লাইট (শনি, সোম, বুধ ও বৃহস্পতিবার)

এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে ফ্লাইট সংখ্যা পরিবর্তনশীল এবং এসব ব্যাপারে বিমান সংস্থার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স
ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর চৌকস ফ্লাইট অ্যাটেনড্যান্টস

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের আন্তর্জাতিক রুট এবং ফ্লাইট সংখ্যা

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে ৭ টি আন্তর্জাতিক গন্তব্যে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে। গন্তব্য নির্ধারণের সময় ইউ এস বাংলা বাংলাদেশী বিমান যাত্রীদের চাহিদার কথা সবার আগে মাথায় রেখেছে। অদুর ভবিষ্যতে ইউ এস বাংলার আন্তর্জাতিক ফ্লাইট সংখ্যা বাড়ানোর বেশ বড় পরিকল্পনা রয়েছে।

রুট দৈনিক ফ্লাইট সাপ্তাহিক ফ্লাইট
ঢাকা – কলকাতা ১ টি ৭ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – কুয়ালালামপুর ১ টি ৭ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – সিঙ্গাপুর ১ টি ৭ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)
ঢাকা – ব্যাংকক ১ টি ৩ টি ফ্লাইট (রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার)
ঢাকা – দোহা (কাতার) ১ টি ৪ টি (রবি, সোম, বুধ ও শুক্রবার)
ঢাকা – গুওাংজু (চীন) ১ টি ৩ টি (মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শনিবার)
ঢাকা – মাস্কট (ওমান ১ টি ৭ টি ফ্লাইট (সপ্তাহের সব দিন ফ্লাইট)

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর টিকেট মুল্য

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সে প্রথম থেকেই চেষ্টা করেছে টিকিটের দাম যতটা সম্ভব কম রেখে যাত্রীদের ভাল মানের সেবা দিয়ে নিজেদের জনপ্রিয়তা বাড়ানো। সেদিক থেকে তারা যে অনেকটাই সফল সেটা তাদের দৈনিক এবং সাপ্তাহিক ফ্লাইট সংখ্যার দিকে তাকালেই বোঝা যায়।

বিভিন্নও শ্রেণীর যাত্রীদের কথা মাথায় রেখে ইউ এস বাংলা তাদের ফ্লাইটগুলোতে বেশ কিছু প্যাকেজ চালু করেছে। এগুলো হল ডিসকাউন্টেড, রেস্টরিকটেড, লিমিটেড অফার, প্রমোশনাল, রেগুলার ও বিজনেস ক্লাস। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা তাদের গন্তব্যগুলোর ভাড়ার একটি লিস্ট করেছি। এখানে শুধু নির্দিষ্ট রুটের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন ভাড়া গুলো উল্লেখ করা হল এবং সাথে প্যাকেজের নাম দিয়ে দেয়া হল। এখানে বলে রাখা ভাল যে বিমান ভাড়া পরিবর্তনশীল। বিভিন্ন কারণে বিমান ভাড়া কিছুটা কম বেশি হতে পারে। ভাড়ার যেকোন পরিবর্তন বা পরিবর্ধনের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গন্য হবে।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স
ফ্লাইট ছাড়ার আগে জরুরী নির্দেশনা দিচ্ছেন ফ্লাইট অ্যাটেনড্যান্টসরা

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর অভ্যন্তরীণ রুটের ভাড়ার তালিকা

নীচের তালিকায় ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের সকল অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটের ভাড়া তালিকা আকারে দেয়া হল।

রুট জনপ্রতি ভাড়া (সর্বনিম্ন) জনপ্রতি ভাড়া (সর্বোচ্চ)
ঢাকা – চট্টগ্রাম ২,৫০০ টাকা (লিমিটেড অফার) ৮,৭০০ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – কক্সবাজার ৩,৬৫০ টাকা (লিমিটেড অফার) ১০,৫০০ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – যশোর ২,৬৯৯ টাকা (লিমিটেড অফার) ৫,৬০০ টাকা (রেগুলার)
ঢাকা – সিলেট ২,৬৯৯ টাকা (প্রমোশনাল) ৬,২০০ টাকা (রেগুলার)
ঢাকা – রাজশাহী ২,৬৯৯ টাকা (প্রমোশনাল) ৬০০০ টাকা (রেগুলার)
ঢাকা – সৈয়দপুর ২,৬৯৯ টাকা (লিমিটেড অফার) ৭,৭০০ টাকা (রেগুলার)
ঢাকা – বরিশাল ২,৬৯৯ টাকা (লিমিটেড অফার) ৬০০০ টাকা (রেগুলার)

 

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর আন্তর্জাতিক রুটের ভাড়ার তালিকা

নীচের তালিকায় ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের সকল আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ভাড়া তালিকা আকারে দেয়া হল।

রুট জনপ্রতি ভাড়া (সর্বনিম্ন) জনপ্রতি ভাড়া (সর্বোচ্চ)
ঢাকা – কলকাতা ৭,৬৭০ টাকা (ডিসকাউন্টেড) ১৫,৮৮৭ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – কুয়ালালামপুর ২২,৮০০ টাকা (ডিসকাউন্টেড) ৩৫,৫২৫ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – সিঙ্গাপুর ২৬,৭৪০ টাকা (রেগুলার) ২৬,৭৪০ টাকা (রেগুলার) ৩৯,০২৫ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – ব্যাংকক ২৩,৩৮০ (রেগুলার) ৩১,৭৬৩ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – দোহা (কাতার) ২৪,৯৭৬ টাকা (প্রমোশনাল) ৩৫,০২০ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – গুওাংজু (চীন) ২৫,০৮৪ (লিমিটেড অফার) ৬৫,৭৫৫ টাকা (বিজনেস)
ঢাকা – মাস্কট (ওমান) ১৮,৭৭২ টাকা (লিমিটেড অফার) ৩৩,৬২৯ টাকা (বিজনেস)
ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স
যাত্রীদের সুবিধার্থে ইউ এস বাংলার স্পেশাল পিক এন্ড ড্রপ সার্ভিস

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর টিকিট কিভাবে কাটবেন

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর টিকিট কাটতে পারবেন অফলাইন এবং অনলাইন দুই ভাবেই।

যারা কম মুল্যে অনলাইনে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর এয়ার টিকিট কিনতে চান তারা ওয়েবসাইট থেকে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স সহ  যেকোন বিমানের যেকোন গন্তব্যের  টিকিট কাটতে পারবেন অতি সহজেই, ঘরে বসেই। ওয়েবসাইটঃ https://airwaysoffice.com/

 

 

এছাড়া দেশ ব্যাপি ছড়ানো সেলস সেন্টারগুলো থেকে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর টিকিট কাটতে পারেন। এছাড়া তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটও আছেঃ https://us-banglaairlines.com

US-Bangla Airways Related Website –usbanglaticket.com,usbanglaairlinesoffice.com,  usbanglaairlinesdhaka.comhttp://usbanglaairlines.com.bd/

অফলাইনে টিকিট কাটতে চাইলে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর যেকোন অফিস থেকে টিকিট কেটে নিতে পারেন।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর হেড অফিসের ঠিকানাঃ

হাউজ ৭৭, সোহরাওয়ারদি অ্যাভিনিউ, বারিধারা ডিপ্লোম্যাটিক জোন

ঢাকা – ১২১২।

 

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর বিমানবহর এবং আসন ব্যাবস্থা

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর বহরে মোট ৭ টি বিমান রয়েছে। এর মধ্যে ৪ টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও ৩ টি বোম্বারডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ ৪০০ বিমান রয়েছে। এবছর নভেম্বর মাসের মধ্যেই ইউ এস বাংলার বহরে যুক্ত হবে আরও ২ টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ বিমান। এছাড়া ক্রমবর্ধমান ফ্লাইট চাহিদা মিটাতে আরও একাধিক বিমান কেনা ও কিছু বিমান লিজ নেয়ার পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছে ইউ এস বাংলা।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স
ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এর চমৎকার আসন ব্যাবস্থা

বোয়িং ৭৩৭-৮০০ মডেলের বিমানগুলো আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ক্ষেত্রে ব্যাবহার করা হয়ে থাকে। এ বিমান গুলোর যাত্রী ধারণ ক্ষমতা ১৬২। এর মধ্যে ৮ টি বিজনেস ক্লাস আসন এবং বাকি গুলো ইকোনমি ক্লাস আসন। বিখ্যাত বোয়িং কোম্পানি এই বিমানে সংযুক্ত করেছে ২ টি শক্তিশালী সি এফ এম ৫৬ ইঞ্জিন। এই বিমানের বিজনেস এবং ইকোনমি উভয় ক্লাসেই চমৎকার আসন বিন্যাস রয়েছে। সিটগুলো বেশ উন্নতমানের। বিজনেস ক্লাস আসনগুলোতে ৪৫ ইঞ্চি এবং ইকোনমি আসনগুলোতে ৩২ ইঞ্চি পরিমান যায়গা থাকে যা অনেক আরামদায়ক।

বোম্বারডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ ৪০০ মডেলের বিমানগুলো ৭৬ জন যাত্রী বহনে সক্ষম। এ বিমানগুলো সাধারণত অভ্যন্তরীণ অথবা সংক্ষিপ্ত আন্তর্জাতিক রুট গুলোতে ব্যাবহার করা হয়। কানাডার তৈরি এই বিমান গুলো ছোট হলেও বেশ শক্তিশালি এবং যথেষ্ট আরামদায়ক। যাত্রী সহ বিমানগুলো ঘণ্টায় প্রায় ৬৭০ কিলোমিটার বেগে চলতে সক্ষম। এই বিমানগুলোতে কোন বিজনেস ক্লাস থাকে না, সব গুলো সিটই ইকোনমি।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রীদের খাবার

সময়মত ফ্লাইট ছাড়া এবং পৌঁছানোর পাশাপাশি যে আরেকটি বিষয় দিয়ে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স তাদের যাত্রীদের মন জয় করেছে সেটি হল তাদের আপ্যায়ন ব্যাবস্থা। প্রথম থেকেই তারা যাত্রীদের আপ্যায়ন এবং খাবার পরিবেশনে অন্য বিমান সংস্থা গুলোর চাইতে এগিয়ে আছে। অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটগুলোতে সাধারণত হালকা খাবার পরিবেশন করা হয়ে থাকে। এর মধ্যে থাকে একটি বার্গার বা হটডগ, একটি কেক, কোমল পানীয় এবং বিশুদ্ধ পানি। তবে ঢাকা – কক্সবাজার রুটে হালকা স্ন্যাক্স এর বদলে ইউ এস বাংলার নিজস্ব ক্যাটারিং থেকে সরবরাহকৃত ভারী খাবারই পরিবেশন করা হয়। খাবার গুলো বেশ মান সম্মত এবং যথেষ্ট সুস্বাদু। আন্তর্জাতিক ফ্লাইট গুলোতে বিমান বাংলাদেশের ক্যাটারিং থেকে সরবরাহকৃত আন্তর্জাতিক মানের খাবার পরিবেশন করা হয়ে থাকে।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স
বরাবরই যাত্রীদের মানসম্মত খাবার পরিবেশন করে প্রসংশা কুড়িয়েছে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স

ইউ এস বাংলার ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লায়ার প্রোগ্রামঃ স্কাই স্টার

ইউ এস বাংলা যাত্রীদের আরও বেশী সম্মানিত করার জন্যে এনেছে বিশেষ ফ্রিকোয়েন্ট ফ্লায়ার প্রোগ্রাম যা স্কাই স্টার নামে পরিচিত। এই প্রোগ্রামের আওতায় যারা নিয়মিত ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স এ ফ্লাই করে থাকেন তাদের জন্য আছে বিশেষ সুযোগ সুবিধা। সুবিধাগুলোর মধ্যে থাকছে ৫৯ টি রেস্টুরেন্ট, ৫৯ টি প্রডাক্ট শোরুম, ৪২ টি হোটেল,১২ টি বিউটি পার্লার এবং ১৪ টি হাসপাতালে বিশেষ ডিসকাউন্ট সহকারে সেবা পাবার সুযোগ। যত বেশী ফ্লাই করবেন, তত বেশী সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

Fly Fast, Fly Safe, এই স্লোগানকে মাথায় রেখে ইউ এস বাংলা তাদের যাত্রা শুরু করেছিল। তাদের অনেক প্রতিকুল পথই অতিক্রম করতে হয়েছে। বাংলাদেশের মত স্বল্প আয়ের একটি দেশে বিমান সার্ভিস দেয়া এবং সেটা ভালভাবে চালিয়ে নেয়ার জন্যে যথেষ্ট দক্ষতা, অভিজ্ঞতা ও আন্তরিকতা প্রয়োজন। সে দিক থেকে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স কোন কমতি রাখেনি। একারনেই সময়ের বিবর্তনে ইউ এস বাংলা আজ বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ এবং সফল একটি বিমান সংস্থা। তাদের সাফল্য আরও বর্ধিত হোক এবং সেবার মান আরও উন্নত হোক, এই আমাদের প্রত্যাশা।

 

ইউ এস বাংলার টিকিট বুক করতে ভিজিট করুনঃ https://airwaysoffice.com/

পেমেন্ট করতে পারবেন ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, বিকাশ, মোবাইল ব্যাংকিং ও নগদ টাকায়।

Happy Arcade Shopping Mall, 2nd FLR, Suite 34,
Holding 3 Rd No. 3, Dhanmondi, Dhaka 1205

+8801768232311 (Whatsapp / Viber / IMO )

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here