ক্যাথে প্যাসিফিক এয়ারলাইনস সম্পর্কিত তথ্য এবং ঢাকা, বাংলাদেশ বিক্রয় অফিসের ঠিকানা

0
503

ক্যাথে প্যাসিফিক এয়ারলাইনটি ২৪ সেপ্টেম্বর ১৯৪৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এর কেন্দ্রীয় সদর দপ্তর হংকং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবস্থিত।এটি পর্যটকদের কাছে খুব জনপ্রিয় একটি বিমান সংস্থা।ক্যাথে প্যাসিফিক বিশ্বের ৪০ টি দেশের মোট ১৭৭টি স্থানে যাত্রী পরিবহন করে থাকে।ক্যাথে প্যাসিফিক কোম্পানির স্লোগান হোল “লাইফ ওয়েল ট্র্যাভেলড”।

ড্রাগন এয়ার বিমানটি হংকং এর একটি অঞ্চল ভিত্তিক নিবন্ধিত এয়ারলাইন যা ক্যাথাই প্যাসিফিকের সম্পূর্ণ মালিকানাধীন সাবসিডিয়ারি কোম্পানি হিসেবে চীনের মাইনল্যান্ড এবং এশিয়ার অন্যত্র ৩৩ টি নির্দিষ্ট স্থানে ৩২টি নির্ধারিত বিমান দ্বারা যাত্রীদের পরিষেবাদি প্রদান করে।ক্যাথেই প্যাসিফিক এয়ার চীন লিমিটেড এর ১৯.৫৩ ভাগ মালিকানার অধিকারী।ক্যাথেই প্যাসিফিক চীনের জাতীয় পতাকাবাহী বিমান যা চীনের নাগরিক দেড় যাত্রী পরিবহন, পণ্য আনা নেয়া এবং এয়ারলাইন্স সম্পর্কিত অন্যতম পরিষেবা প্রদান কারে।

ক্যাথাই প্যাসিফিক হংকং এয়ারের বেশিরভাগ শেয়ার ক্রয়ের জন্য অন্যতম মালিকানার অধিকারী এ ছাড়াও ক্যাথাই প্যাসিফিক এশিয়া-অঞ্চলের যাত্রীদের নির্ধারিত পরিষেবা প্রদানের পাশাপাশি বিমানযোগে পণ্য পরিবহনকারী সংস্থা গুলোর মধ্যে প্রধান।

ক্যাথাই প্যাসিফিক মুলত হংকং ভিত্তিক আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থা। এদের দুই অক্ষরের “IATA” কোডটি হল KA।ক্যাথাই প্যাসিফিক ঢাকার গুলশানে গ্লোবাল এভিয়েশন সার্ভিসেস লিমিটেড নামে একটি অফিস পরিচালনা করে যারা ক্যাথাই প্যাসিফিক এয়ারলাইনের GSA হিসাবে কাজ করে।এর প্রধান কেন্দ্রস্থল হংকং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মোট ৪০টি দেশের আলাদা আলাদা ১৭৭টি গন্তব্যে বিমান দ্বারা যাত্রী পরিবহন সেবা পরিচালনা করে।ক্যাথাই প্যাসিফিক এবং তাদের অধীনস্ত কর্মীর সংখ্যা বিশ্বব্যাপী প্রায় ২৯,০০০জন (তাদের ২২,০০০ জনেরও বেশি হংকংয়ে কর্মরত)।ক্যাথাই প্যাসিফিক হংকং লিমিটেডের স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানি। এ ছাড়ও সোয়ার প্যাসিফিক লিমিটেড এবং এয়ার চীন কোম্পানি দুটির উল্লেখযোগ্য শেয়ারের মালিকানার অধিকারী ক্যাথাই প্যাসিফিক।

ক্যাথাই প্যাসিফিক বিশ্বব্যাপী জোটবদ্ধ বিমান সংস্থার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। এই মিলিত বিমান সেবা পরিচালনা পদ্ধতির জন্য পুরো বিশ্বের ৭৫০টিরও বেশি গন্তব্যস্থলে যাত্রী পরিবহন সেবা সরবরাহ করা সম্ভব হয়েছে।ড্রাগন এয়ার বিশ্বের একমাত্র অধিভুক্ত বিমান সংস্থা।

বাংলাদেশের বাজারে ক্যাথাই প্যাসিফিক বিমানের টিকিট বিক্রি করে অনেক ট্র্যাভেল এজেন্ট রয়েছে। তবে সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য অনুমোদিত বিক্রয় এজেন্টগুলির একটি এয়ারওয়েজ অফিস বা জু ইনফোটেক (বাংলাদেশে শীর্ষস্থানীয় ট্র্যাভেল এজেন্ট) যারা বিমান শিল্প ও ভ্রমণ সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি গত দিক নিয়ে কাজ করে। সর্বোচ্চ সস্তা মূল্যে বিমানের টিকেট এবং অন্যান্য পরিষেবা পেতে যোগাযোগ করুন।

ঢাকাস্থ ক্যাথাই প্যাসিফিক এয়ার বিক্রয় প্রতিনিধির অফিসে যোগাযোগের ঠিকানা

এয়ারওয়েজ অফিস বা জু ইনফোটেক বাংলাদেশ লিমিটেড
রোড ৩, হোল্ডিং ৩, সুইট ৩৪,
হ্যাপি আর্কেড শপিং মল,
ধানমণ্ডি,ঢাকা ১২০৫, বাংলাদেশ।
মোবাইল নাম্বার: ০১৯৭৮৫৬৯২৯৪– ৯৫-৯৬
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটঃ http://cathaypacificair.com.bd/
সকাল ১০.৩০ টা থেকে রাত ৮.৩০টা পর্যন্ত(সপ্তাহে ৭ দিন খোলা)

এয়ারওয়েজ অফিসের গুগল ম্যাপ লোকেশন –

 

এয়ারওয়েজ অফিসের ফেসবুক পেজ –

ঢাকাস্থ ক্যাথাই প্যাসিফিক এয়ার কর্পোরেট অফিসঃ

গ্লোবাল এভিয়েশন সার্ভিসেস লিমিটেড (জিএসএ)
কলোড সেন্টার, গ্রাউন্ড ফ্লোর
২০৬ / এ, তেজগাঁও শিল্পকৌশল এলাকা,ঢাকা -১২০৮, বাংলাদেশ
ইমেইল: dacres.common@dragonair.com

ক্যাথাই প্যাসিফিক এয়ার ঢাকা বিমানবন্দর অফিসের ঠিকানা:

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিমানবন্দর
ফোন নাম্বার: +৮৮ (০২) ৮৯০ ১৭৮৫
মোবাইল নাম্বার: ০১৬১৮১৮১৩১৩, ০১৭৬৮২৩২৩১১

ক্যাথাই প্যাসিফিক এয়ার চট্টগ্রাম অফিসের  ঠিকানা:

গ্লোবাল এভিয়েশন সার্ভিসেস লি
(শাহজাদি চেম্বার)গ্রাউন্ড ফ্লোর
১৩৩১ / বি, এস কে মুজিব রোড,
আগ্রাবাদ সি / এ চট্টগ্রাম -৪১০০
মোবাইল নাম্বার: ০১৬১৮১৮১৩১৩, ০১৭৬৮২৩২৩১১

ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিমান সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য জানার উপায়:

যাত্রীদের ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিমান সম্পর্কিত তথ্য জানার প্রক্রিয়াকে বলে অনলাইন চেক-ইন। এটি এমন প্রক্রিয়া যেখানে যাত্রীরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে তাদের ফ্লাইটে উপস্তিথির তথ্য নিশ্চিত এবং তাদের নিজস্ব বোর্ডিং পাসগুলি মুদ্রণ করতে পারেন।ক্যারিয়ার এবং নির্দিষ্ট ফ্লাইটের ধরনের উপর নির্ভর করে যাত্রীরা তাদের পছন্দের খাবার এবং খাবারের বিকল্প ও মালপত্রের পরিমাণের তথ্য নিশ্চিত করতে পারেন । তাছাড়া যাত্রীরা উক্ত পক্রিয়ার মাধ্যমে তাদের পছন্দের আসন পূর্বেই নির্বাচন করতে পারে।
#অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট এর ক্ষেত্রে প্রস্থানের নির্ধারিত সময় থেকে  ১ কিংবা ১ঃ৩০ ঘন্টা আগে চেক-ইন করতে হয়।
#যাত্রীরা তাদের ই-বোর্ডিং পাস চেক ইন এর জন্য মোবাইল ওয়েবসাইট বা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে পারেন।
# যে সকল যাত্রী অনলাইনে চেক ইন করবে তাদের নিজ উদ্যোগে তাদের বোর্ডিং পাস মুদ্রণ এবং তাদের বিমানবন্দর থেকে বোর্ডিং পাসের জন্য একটি ভাউচার বাধ্যতামূলক গ্রহন করতে হবে

রিজার্ভেশন সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্যঃ

ফ্লাইটে উঠার আগে অবশ্যই আপনার বিমানের টিকিটটি পরীক্ষা করুন এবং ভালভাবে নিশ্চিত হন। আপনি যদি আপনার রিজার্ভেশন সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য দেখতে চান তাহলে রিজার্ভেশন থেকে, আপনার রিজার্ভেশন রেফারেন্স বা পিএনআর নাম্বার টি এবং আপনার নামের শেষ অংশটি লিখুন।উক্ত তথ্য গুলো লিখার পর রিজার্ভেশন থেকে আপনি আপনার সকল তথ্য জমা দেখতে পারবেন।
আপনি ফ্লাইট পরিবর্তন করতে চাইলে আপনার বুকিং রেফারেন্স নাম্বার এবং আপনার নামের শেষ অংশটি লিখুন। এরপর আপনার বুকমার্ক এ আপনার নামের অংশটুকু একইরকম কিনা সেটা নিশ্চিত করুন।

Cathay Pacific Airlines office Related post By
airways officezoo infotech, zooHoliday, zoo.family

ক্যাথাই প্যাসিফিক এয়ারলাইন্সের ঢাকা অফিসের ঠিকানা বা ফোন নাম্বারে সংক্রান্ত যে কোনও সমস্যা / অভিযোগ নীচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here