২০১ গম্বুজ মসজিদ

0
145

ভ্রমণের জন্য আমদের কাছে প্রথমে বিদেশই হয়ত পছন্দের তালিকায় থাকতে পারে। কিন্তু আমদের বাংলাদেশের অনেক স্থান ও স্থাপনা রয়েছে যেগুলো বিদেশের চেয়ে কোনো অংশে কম হয় না। এমনই একটি স্থাপনা হচ্ছে টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার দক্ষিণ পাথালিয়া গ্রামের ‘২০১ গম্বুজ মসজিদ’। ২০১ গম্বুজ মসজিদ হলো পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী গম্বুজ এবং দ্বিতীয় উচ্চতম মিনার বিশিষ্ট মসজিদ। এই মসজিদের নকশা করা হয়েছে ২০১টি গম্বুজ ও ৯টি মিনার দিয়ে সজ্জিত একটি পূর্নাঙ্গ মসজিদ কমপ্লেক্স হিসেবে। মসজিদটি এখনো নির্মাণাধীন। টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার দক্ষিণ পাথালিয়া গ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে ঐতিহাসিক স্থাপনা। এর নির্মাণ কাজ শেষ হলে কাবার ইমাম এসে নামাযের ইমামতি করে মসজিদটি উদ্বোধন করবেন।

২০১ গম্বুজ মসজিদ বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার নগদা শিমলা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাথালিয়া গ্রামে অবস্থিত। শৈল্পিক স্থাপনা হিসেবে এ মসজিদটি অনন্য বৈশিষ্ট্যের এক প্রতীক হয়ে দাঁড়াবে। মসজিদটির দরজা বানানো হবে ৫০ মন পিতল দিয়ে দরজায় লেখা থাকবে আল্লাহ্‌র ৯৯টি নাম, মসজিদের দেয়ালে লেখা পিতল দিয়ে লেখা থাকবে পূর্ণ ৩০ পারা পবিত্র কোরআন শরীফ। প্রতিটি গম্বুজে ব্যবহার করা হবে ক্রিস্টাল পাথরের টাইলস যার ফলে উক্ত মসজিদে কোন রঙয়ের ব্যবহার করতে হবে না।  যে কেউ বসে বা দাঁড়িয়ে মসজিদের দেয়ালে অংকিত কোরআন শরিফ পড়তে পারবেন। অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন এই মসজিদের ছাদে ৮১ ফুট উচ্চতার একটি গম্বুজ রয়েছে। এই বড় গম্বুজের চারপাশে ছোট ছোট গম্বুজ আছে ২০০টি। এদের প্রত্যেকের উচ্চতা ১৭ ফুট। মূল মসজিদের চার কোণায় রয়েছে ৪টি মিনার। এদের প্রত্যেকের উচ্চতা ১০১ ফুট। পাশাপশি আরও চারটি মিনার আছে ৮১ ফুট উচ্চতার। এই মসজিদে একসঙ্গে প্রায় ১৫ হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। দেশী বিদেশী মেহমানদের জন্য নির্মাণ করা হবে ডাক বাংলো এবং বিনামূল্যে খাবারের ব্যবস্থা। ইতোমধ্যেই (নির্মাণাধীন অবস্থায়) মসজিদটি দেশি-বিদেশি পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। প্রতিদিন অসংখ্য দেশি-বিদেশি পর্যটক নির্মাণ কাজ দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন।

যেভাবে যাবেনঃ-

টাঙ্গাইল জেলা সদর থেকে গোপালপুর উপজেলাগামী বাস পাওয়া যায়। সেই বাসে চড়ে ১ ঘণ্টা সময়ের ব্যবধানে গোপালপুর উপজেলায় পৌঁছানো যায়। সেখান থেকে রিক্সায় করে খুব সহজেই শিমলা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাথালিয়া গ্রামে ২০১ গম্বুজ মসজিদের সামনে পৌঁছানো যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here